সোমবার ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রাত ১২:১৫

হৃদয়ে শরীয়তপুরে নিউজ প্রকাশ সেই আব্দুর রহমানকে চায়ের দোকানের সামগ্রি দিলেন ডিসি

নভেম্বর ২৬, ২০২২            

শাওন বেপারী, স্টাফ রিপোর্টার,

গত (৭-নভেম্বর) “জাজিরায় অন্ধ সিরাজ মুন্সির পরিবারের হাল ধরেছে ছোট্ট ছেলে আব্দুর রহমান” শিরোনামে হৃদয়ে শীয়তপুরে সংবাদ প্রকাশের পর শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নাওডোবা ইউনিয়নের পূণর্বাসন প্রজেক্টে বসবাস করা অন্ধ সিরাজ মুন্সির সংসারের হাল ধরা সেই আব্দুর রহমানকে একটি চায়ের দোকান করার প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র দিলেন শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার কার্যালয়ের অধীনে বৃহস্পতিবার দুপুরে জাজিরা উপজেলা পরিষদের নতুন সম্প্রসারিত ভবনের নিচতলায় আসবাবপত্র হিসেবে ১টি ডাবল চুলা, ১টি গ্যাস সিলিন্ডার, ২টা করে কেটলি, ১টি সসপেন, ১টি বালতি, ১টি গামলা, ১টি ছাকনি, ১২টি কাপ, ১০কেজি চিনি, ৫কেজি চা পাতাসহ চায়ের দোকানের প্রয়োজনীয় প্রায় সকল কিছু আব্দুর রহমান ও তার অন্ধ বাবা সিরাজ মুন্সির হাতে তুলে দেন শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান।

এসময় সমাজসেবা অধিদপ্তরের বিকল্প কর্মসংস্থান প্রকল্প থেকে আব্দুর রহমানসহ মোট আটজনকে একইভাবে চায়ের দোকানের আসবাবপত্র দেয়া হয়। এছাড়া দুইজন মহিলাকে বাড়িতে পালন করার উদ্দেশ্যে ২০টি করে মুরগী দেয়া হয় এবং ১১জন অসুস্থ রোগীকে মোট ২৫ হাজার টাকা নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেন শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান।

এসময় জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান এর সাথে উপস্থিত ছিলেন, জাজিরা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোবারক আলী শিকদার, ভাইচ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ জব্বার আকন ও মহিলা ভাইচ চেয়ারম্যান পারভীন আক্তার, জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ কামরুল হাসান সোহেল।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জাজিরা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) উম্মে হাবিবা ফারজানা, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা এবিএম সৌরভ রেজা শিহাব, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ জামাল হোসাইন এবং উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম।

এসময় জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসান সহায়তা প্রাপ্তদের যাকে যেই সহযোগিতা করা হলো তা কাজে লাগিয়ে অর্থ উপার্জনের মাধ্যমে নিজেদের স্বাবলম্বী করে তোলার জন্য বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করেন। পাশাপাশি যেকোনো সমস্যায় উপজেলা প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করার জন্য বলেন।

আব্দুর রহমান ও  তার অন্ধ পিতা সিরাজ মুন্সিসহ সহায়তা প্রাপ্ত দরিদ্র পরিবারগুলো জানায়, উক্ত সহযোগিতা তাদের নতুন কর্মসংস্থান তৈরিতে সহযোগিতা করবে। যা তাদের জন্য অনেক বেশি উপকারী হবে বলে জানিয়েছেন তারা।

উল্লেখ্যঃ গত ৭-নভেম্বর হৃদয়ে শরীয়তপুরে “জাজিরায় অন্ধ সিরাজ মুন্সির পরিবারের হাল ধরেছে ছোট্ট ছেলে আব্দুর রহমান” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হলে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসানের নজরে বিষয়টি আসলে জাজিরা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উক্ত সহযোগিতা করা হয়।

© Alright Reserved 2021, Hridoye Shariatpur