শনিবার ১৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সকাল ১১:৩৬

শরীয়তপুর হাসপাতালে পায়ে ধরেও ডাক্তারের হাত থেকে রক্ষা পেলনা রোগী, ভিডিও ভাইরাল

আগস্ট ১৪, ২০২২            

হৃদয়ে শরীয়তপুর ডেস্কঃ

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে ডাক্তারের মাইরের শিকার হলেন রোগী।ডাক্তারের পায়ে ধরেও লাঞ্ছিত হওয়ার থেকে রক্ষা পেলেন না রোগী। এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুক ও মেসেঞ্জারে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে দেখা যায় শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের চেম্বারে ডাক্তার আকরাম এলাহীর পা ধরে আছে এক রোগী আর ডাক্তার আকরাম এলাহী ওই রোগীকে মারধর করছে।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে গিয়ে জনা যায়, গত ২৮ জুলাই বৃহস্পতিবার শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে আসেন এক যুবক ও তার বাবা। কাউন্টার থেকে টিকি নিয়ে ডাক্তার আকরাম এলাহীর চেম্বার লাইনে দাঁড়ায়, দীর্ঘখন দাঁড়িয়ে থাকার পরে হঠাত চেম্বারের পিয়ন আতাউর রোগীদের ধাক্কা দেয়, ধাক্কায় ওই যুবক পড়ে যায়। পরে যাওয়া যুবক উঠে এসে পিয়ন আতাউরকে ধাক্কা মারে। ধাক্কা খেয়ে পিয়ন গিয়ে ডা. আকরাম এলাহীকে বলেন। আকরাম এলাহী ওই যুবক ও তারা বাবা চেম্বারের ভিতর ডেকে নিয়ে বসেন দরবারে। দরবার চলাকালীন ভয়ে যুবকটি ডা. আকরাম এলাহীর পায়ে ধরে মাফ চান কিন্তু আকরাম এলাহী মাফ না করে থাপ্পর কিল ঘুষি ও লাথি মারতে থাকেন। ওই যুবককে কিল ঘুষি লাথি মারার সেই ভিডিও শনিবার ও রবিবার সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

 

এবিষয়ে জানতে চাইলে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের ডাক্তার আকরাম এলাহী বলেন, আমার এসিস্টেন্ট এর গায়ে হাত দিছে। মারার পরে মারছি এতে আমার কোনো দোষ নাই, ইসলামীক রুলস অনুযায়ী ঠিক আছে।

এবিষয়ে ডাক্তার আকরাম এলাহীর পিয়ন আতাউর বলেন, আমি অসুস্থ মানুষ। ওই লোক আমর বুকের উপরে থাপ্পড় মারছে এর পরেও আমি কিছুই বলিনি, শুধু স্যারের কাছে বলেছি।

 

© Alright Reserved 2021, Hridoye Shariatpur