সোমবার ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রাত ৯:২৬

শরীয়তপুরে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ, ১০ হাজার টাকা জরিমানা

নভেম্বর ১৫, ২০২২            

হৃদয়ে শরীয়তপুর ডেস্কঃ

শরীয়তপুর সদর উপজেলার পৌরসভা ৩ নং ওয়ার্ড বাঘিয়া এলাকার পালং উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে বাল্যবিয়ে দেয়ার অপরাধে ১০ হাজার টাকা জরিমানা সহ বিয়ে আয়োজন বন্ধ করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জ‍্যোতি বিকাশ চন্দ্র।

জানা যায়, ১৫ নভেম্বর মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে বাল্যবিয়ের আয়োজন করেন পরিবারের লোকজন। সংবাদ পেয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উপস্থিত হয়ে, বিয়ের সমস্ত আয়োজন বন্ধ করেন এবং মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা জরিমানার করেন। পাশাপাশি মেয়েটির ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা নেয়া হয় মেয়ের বাবা- মার কাছ থেকে। এ সময় বাল্য বিয়ের কুফল সম্পর্কে উপস্থিত সকলকে অবগতও করেন নির্বাহী কর্মকর্তা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যোতি বিকাশ চন্দ্র জানান, বাঘিয়া গ্রামে একটি বাল্য বিয়ে হচ্ছে, এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেই। এসময় মেয়ের বাবাকে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর ৮ ধারায় ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড আরোপ করে তাৎক্ষণিক আদায়পূর্বক মোবাইল কোর্ট মামলা নিষ্পত্তি করি। মেয়ের অভিভাবক মা- বাবার মুচলেকা আদায় করে আইনানুসারে ১৮ বছর বয়স না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে না দেয়ার অঙ্গিকার নামায় স্বাক্ষর নেয়া হয়। উপস্থিত সকলকে বাল্য বিবাহের কূফল সম্পর্কে অবগত করে বাল্যবিবাহ না দেয়ার জন্য অনুরোধ করি। এ ধরনের বিষয়ে আমাদের অভিযান চলমান থাকবে।

© Alright Reserved 2021, Hridoye Shariatpur