শনিবার ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রাত ৪:২৩

ভেদরগঞ্জে প্রেমিকের হাতে প্রবাসী স্বামী খুন, আটক ২

আগস্ট ২০, ২০২৩            

হৃদয়ে শরীয়তপুর ডেক্সঃ
শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিকের হাতে আলাউদ্দিন বেপারী নামে এক প্রবাসী স্বামী খুন হহয়েছে। এ ঘটনায় দুই জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ।শনিবার (১৯ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার উত্তর তারাবুনিয়া ইউনিয়নের মজিল হক বেপারী কান্দি গ্রামের তিন রাস্তার মোড়ে এঘটনা ঘটেছে।

নিহত প্রবাসী আলাউদ্দিন  (৩৪) মজিল হক বেপারী কান্দি গ্রামের মুকবুল হক বেপারীর ছেলে। আটককৃতরা একই গ্রামের ওবায়দুল্লাহ মৃধার দুই ছেলে আব্দুল্লাহ মৃধা (২৫) ও রিফাত মৃধা (২০)।

মারামারি ছাড়াতে গিয়ে আহত হয়েছেন আসামী কান্দি গ্রামের সাদেক প্রধানীয়ার ছেলে কিরন প্রধানীয়া(২২)। তিনি বর্তমানে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহত আলাউদ্দিন বেপারীর মরদেহও একই হাসপাতালের মর্গে রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়সূত্রে জানা যায়, আলাউদ্দিন বেপারী দীর্ঘদিন ধরে দুবাই প্রবাসী ছিলেন। তার স্ত্রী রুমা আক্তার (২৮) দুই ছেলে মেয়ে নিয়ে বাড়িতে থাকতেন। অভিযুক্ত আব্দুল্লাহ মৃধা আলাউদ্দিন বেপারীর একটি দোকান ভাড়া নিয়ে টেইলার্সের ব্যবসা করতেন। ভাড়া তোলাসহ কাপড় সেলাই করতে গিয়ে রুমার সাথে আব্দুল্লাহর সম্পর্কের উন্নতি হয়। এক মাস আগে আলাউদ্দিন বেপারী দেশে ফেরার পর আব্দুল্লাহ ও রুমার সাথে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে বলে অভিযোগ ওঠার পর স্থানীয় মুরব্বীরা বিষয়টি নিয়ে উভয় পক্ষকে বাড়াবাড়ি করতে নিষেধ করেন। তারপরও আলাউদ্দিন বেপারী আব্দুল্লাহ মৃধার সাথে বিষয়টি নিয়ে তর্কে জড়িয়ে পড়লে আব্দুল্লাহ তার হাতে থাকা কাপড় কাটার কাঁচি দিয়ে আলাউদ্দিনের ঘাড়ে আঘাত করেন। স্থানীয়রা ছাড়াতে গেলে তারাও আহত হোন। এরপর আলাউদ্দিন বেপারীকে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত আলাউদ্দিন বেপারীর স্ত্রী রুমা আক্তার বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আব্দুল্লাহ আমার একটি গোপন ছবি দিয়ে আমাকে জ্বালাতন করত। ভয় দেখিয়ে বলত, ফেসবুকে ছবি ভাইরাল করে দেব। সেই ছবি আজ আমার মোবাইলে দিয়েছে সে। ছবিটি আমি ডিলেট করি নাই, আমার স্বামীকে দেখানোর জন্য। স্বামী আলাউদ্দিন মোবাইলে ছবি দেখতে পেয়ে আব্দুল্লাহর দোকানে গিয়েছিল। তারপর এই ঘটনা ঘটেছে।

মো. ইয়াকুব নামে স্থানীয় একজন  বলেন, পরকীয়া প্রেমের কারণে এই জঘন্য ঘটনা ঘটেছে। আব্দুল্লাহ মৃধা আলাউদ্দিন বেপারীর ঘাড়ে কাঁচি ঢুকিয়ে দিয়ে তাকে হত্যা করেছে। এরকম ঘটনা যেন আর না ঘটে সেজন্য সঠিক তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের বিচার দাবি করছি।

আলাউদ্দিন বেপারীর ছোট বোন তানজিলা আক্তার  বলেন, আব্দুল্লাহ ও রুমা প্রেম করছে। বিষয়টি নিয়ে জানাজানি হওয়ার পর বিচার সালিশ হয়েছে। বিচারে আব্দুল্লাহকে সর্তক করে দেওয়া হয়েছিল। আলাউদ্দিনকে হত্যাকারী আব্দুল্লাহ মৃধা, তার ভাই রিফাত মৃধা ও রুমা আক্তারের উপযুক্ত বিচার দাবি করছি আমি।

বিষয়টি নিয়ে শরীয়তপুরের সহাকারী পুলিশ সুপার (ভেদরগঞ্জ সার্কেল) মুসফিকুর রহমান বলেন, আলাউদ্দিন বেপারী নামে এক ব্যক্তিকে কাঁচির আঘাতে খুন করা হয়েছে। এই ঘটনায় আব্দুল্লাহ মৃধা ও রিফাত মৃধা নামে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। আলাউদ্দিনের স্ত্রী রুমা আক্তারের সাথে আব্দুল্লাহর প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে জানতে পেরেছি। তাদের পরকীয়া প্রেমের বিষয়টি নিয়ে এলাকার মুরব্বীরা তাদেরকে বাড়াবাড়ি করতে নিষেধ করেছিল। মুরব্বীদের সিদ্ধান্ত ছিল, যে যার মত থাকবে। তারপরও পরকীয়া প্রেম নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে পরকীয়া প্রেমিকের হাতে খুন হয়েছেন প্রবাসী আলাউদ্দিন বেপারী। এঘটনায় মামলা হওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

© Alright Reserved 2021, Hridoye Shariatpur