সোমবার ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রাত ৯:৩৯

বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি দখলের চেষ্টা করছেন ভেদরগঞ্জ থানা বিএনপির আহবায়ক

জুলাই ১২, ২০২২            

হৃদয়ে শরীয়তপুর ডেক্সঃ

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান বেপারীর জমি দখল করে ঘর উত্তোলনের চেষ্টা অভিযোগ ওঠেছে ভেদরগঞ্জ থানা বিএনপি আহবায়ক  আবুল হাসেম ঢালি ও তার ছেলে আসাদ ঢালী বিরুদ্ধে। বিবাদী আবুল হাসেম ঢালী আদালতের নিষেধাজ্ঞা না মেনে ওই জমিতে পাকা ঘর ও বাউন্ডারি করার চেষ্টা করছেন ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ঘটনাটি ভেদরগঞ্জে পৌরসভা ১নং ওয়ার্ডের পুটিয়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান বেপারীর জমি ৬০নং পুটিয়া মৌজার এসএ ৬৩১ দাগে ২৬ শতাংশ এবং এসএ ৬৩২ দাগে ৩১ শতাংশ  জমি কিনে ভোগদখল করে আসছিলেন। ভুলবশত ওই জমি তোফাজ্জল হোসেন তালুকদারের নামে সাড়ে ২৫ শতাংশ বিআরএস রেকর্ড হয়ে যায়। কিন্তু ওই জমির সাড়ে ২৫ শতাংশ তোফাজ্জল হোসেন তালুকদারের কাছ থেকে ক্রয় দাবি করে বিএনপি নেতা আবুল হাসেম ঢালী এবং সেই সূত্রে জমি দখলের চেষ্টা করলে, তার প্রেক্ষিতে আদালতে সত্য ঘোষণা ও বন্টন মামলা করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান বেপারী, দেওয়ানি মামলা নং ২৫৩/২০১৮। এর পর আবার বিএনপি নেতা জমি দখলের চেষ্টা করলে শরীয়তপুর জেলা জজ আদালত মিস আপীল ৩৯/২০২১ এর পরিপ্রেক্ষিতে নিষেধাজ্ঞা আদেশ দেন। আদালত উক্ত মূল মামলার নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত উভয়পক্ষের উপর নালিশী সম্পত্তিতে স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ প্রদান করেন। আদালতের আদেশ অমান্য করে জমি দখলের বার বার চেষ্টা করে ভেদরগঞ্জ থানা বিএনপির আহবায়ক

এবিষয়ে আবুল হাসেম ঢালির ছেলে আসাদ ঢালী বলেন, জজ কোর্টে আমাদের এই জমির নিষেধাজ্ঞা ছিল। কিন্তু উচ্চ আদালত ৬ মাসের জন্য নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করছেন। এবং স্থাপনা নির্মাণের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন নাই বা তুলতেও বলেন নাই।

 

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান বেপারী বলেন, আমরা ক্রয় সুত্রে এসএ মালিক। এই জমিটি তোফাজ্জল হোসেন তালুকদারের নামে ভুলবশতো বিআরএস হয়ে যায়৷ যার জন্য আমরা দেওয়ানি আদালত এ মামলা করি। মামলা করায় কোর্ট আদেশ দেয় কাজ স্থগিত রাখার। কিন্তু আবুল হাসেম ঢালি জোর পূর্বক কোর্ট এর আদেশ অমান্য করে ইট বালু সিমেন্ট এনে কিছু অংশ বাড়ির ওয়াল এবং বাউন্ডারি গাথনি করার সময় থানায় অভিযোগ করি।

অভিযোগের ভিত্তিতে ভেদরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ বাহারুল খান এ কাজ বন্ধ করেন এবং  তিনি বলেন ওই জায়গা নিয়ে আদালতে মামালা আছে আমি কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করতে পারবো না। যদি কেউ কোন ধরনের বিশৃঙ্খলা ঘটানোর চেষ্টা করেন তাহলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

© Alright Reserved 2021, Hridoye Shariatpur