সোমবার ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রাত ৯:৩৩

ধর্ম নিয়ে কটূক্তি, ছেলেকে ত্যাজ্য করলেন বাবা

অক্টোবর ৭, ২০২২            

হৃদয়ে শরীয়তপুর ডেস্কঃ

আল্লাহ ও রাসুল হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি করায় শরীয়তপুরে ছেলেকে ত্যাজ্য করেছেন এক বাবা। তিনি তার স্থাবর ও অস্থাবর সব সম্পত্তি থেকে ছেলেকে বঞ্চিত করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার ৬অক্টোবর সকালে নোটারির মাধ্যমে রাজিব মুন্সিকে  ত্যাজ্য করে পিতা সেলিম মুন্সি। সেলিমের বাড়ি শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের সিংগাইরা গ্রামে। তার ছোট ছেলে রাজিব থাকেন জার্মানিতে।

 

সেলিম মুন্সী বলেন, আমার ছোট ছেলে রাজিব দীর্ঘদিন ধরে বিপথগামী। আমরা বারবার তাকে শোধরানোর চেষ্টা করেছি; কিন্তু সে শোধরায়নি। গতকাল সে আল্লাহ ও রাসুল (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি করেছে। তার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বিষয়টি আমাদের সবার মনে চরম আঘাত দিয়েছে। যে সন্তান আল্লাহ ও তার রাসুলকে নিয়ে কটূক্তি করতে পারে, তার সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। সে আমার সন্তান নয়। তাই আমি তাকে ত্যাজ্যপুত্র করেছি এবং আমার সব সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করেছি। আংগারিয়া কওমি মাদ্রাসার প্রধান আলেমসহ বেশ কয়েকজনের সঙ্গে আলোচনা করে ঠান্ডা মাথায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানান তিনি।

রাজিবের বড় ভাই আইনজীবী ফিরোজ আহম্মেদ মুন্সী বলেন, আমরা একটি মুসলিম পরিবারের সন্তান। আমার বাবা একজন আদর্শ শিক্ষক ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন তুলাতলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। তিনি একজন প্রকৃত ধর্ম পালনকারী মুসলিম। আমার এই বিপথগামী ভাইয়ের জন্য আমরা সমস্ত পরিবার এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আজ দুই দিন ধরে আমাদের বাড়িতে পুলিশ পাহারা দিচ্ছে। নানা মানুষের কথা শুনতে হচ্ছে। এটা আমরা কোনো দিন চিন্তাও করিনি। তিনি আরও বলেন, আমার বাবা যে কাজটি করেছে, তা আমাদের পরিবারের সবার সিদ্ধান্তেই করেছে। ইসলামের দৃষ্টিতে আমার ভাই গুরুতর অন্যায় করেছে। আমরা তার বিচার দাবি করছি।

এ বিষয়ে পালং মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আক্তার হোসেন বলেন, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের কারণে পুলিশ রাজিবের নামে মামলা করেছে। আমরা তার পরিবারের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে বাড়িতে পুলিশি পাহারার ব্যবস্থা করেছি। কারণ, কিছু অতি আবেগী মানুষ তাদের বাড়িঘর ভাঙার পরিকল্পনা করছিল।

© Alright Reserved 2021, Hridoye Shariatpur