বুধবার ১৪ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ সকাল ৮:২৯

জাজিরা পদ্মা নদীতে ডাকাতির সময় পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলি, আটক ৫

আগস্ট ১৩, ২০২২            

হৃদয়ে শরীয়তপুর ডেস্কঃ

শরীয়তপুরের জাজিরায় পদ্মা নদীতে স্পিডবোট নিয়ে ডাকাতির সময় পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে নৌ পুলিশ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে জাজিরার পালেরচর এলাকার পদ্মা নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন আবুল বাশার (২০), শাকিল দেওয়ান (২১), ইয়ামিন (১৯), আক্তার হোসেন (৩০) ও ইকবাল মুন্সি। গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের কাছ থেকে ২টি আগ্নেয়াস্ত্র, ১৪টি দেশি অস্ত্র ও মুঠোফোন উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আজ শনিবার দুপুরে জাজিরা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে।

জাজিরার মাঝিরঘাট নৌ পুলিশ ফাঁড়ি সূত্র জানায়, গতকাল বিকেলে অস্ত্র নিয়ে ১২ থেকে ১৩ সদস্যদের একটি ডাকাত দল স্পিডবোট নিয়ে জাজিরার পালেরচর এলাকায় পদ্মা নদীতে নৌযানে ডাকাতি করছিল। নৌ পুলিশ খবর পেয়ে ডাকাত দলকে ধাওয়া করে। এ সময় স্পিডবোটে থাকা ডাকাত দলের সদস্যরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও তখন পাল্টা গুলি ছোড়ে। পরে ডাকাত দলের সদস্যরা লৌহজংয়ের গাঁওদিয়া এলাকার একটি পাটখেতে আত্মগোপন করে। পরে পুলিশ গাঁওদিয়া ও পূর্ব পালগাঁও এলাকা থেকে পাঁচজনকে আটক করে।

জাজিরার মাঝিরঘাট নৌ পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) জহিরুল হক বলেন, স্পিডবোট নিয়ে একদল যুবক ডাকাতি করছে এমন খবর পেয়ে পুলিশ অভিযানে যায়। ঘটনাস্থলে যাওয়ার পর পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে পাইপগান থেকে গুলি ছোড়ে। আত্মরাক্ষার্থে পুলিশ শটগান থেকে ৯টি গুলি ছোড়ে।

জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, নৌ পুলিশের এসআই জহিরুল হক বাদী হয়ে জাজিরা থানায় বিস্ফোরক, অস্ত্র ও ডাকাতি আইনে মামলা করেন। গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

© Alright Reserved 2021, Hridoye Shariatpur