শনিবার ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ রাত ২:৫৪

কোন রাজনৈতিক দলের নির্বাচনে অংশ নেয়া তাদের একতিয়ার, নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান

মে ২০, ২০২২            

হৃদয়ে শরীয়তপুর ডেক্স:

২০২৩ সালের ডিসেম্বর অথবা ২০২৪ সালের জানুয়ারীতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্টিত হবে । এ লক্ষ্য নিয়ে নির্বাচন কমিশন কাজ করছে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএমে ভোট নেয়া হবে এমন খবর প্রচারিত হচ্ছে। তা নিয়ে বিভিন্ন আলোচনা,সমালোচনা হচ্ছে। পক্ষে-বিপক্ষে কথাবার্তা হচ্ছে। তা আমরা পরীক্ষা-নিরিক্ষা করছি । ইভিএমে ভোট গ্রহন করার বিষয়টি এখনো চুরান্ত নয়। কোন সিদ্ধান্তই নেয়া হয়নি। শুক্রবার শরীয়তপুরে ভোটার তালিকা হালনাগাদ ও স্মার্ট কার্ড বিতরন কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতির বক্তব্যে এ সকল কথা বলেন নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান।

জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন জেলা প্রশাসন ও জেলা নির্বাচন কার্যালয়। জেলা প্রশাসক পারভেজ হাসানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার এসএম আশ্রাফুজ্জামান, জেলা পরিষদের প্রশাসক সাবেদুর রহমান,আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মোস্তফা ফারুকী, শরীয়তপুর পৌর মেয়র পারভেজ রহমান, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহিদ হাসান প্রমূখ।

নির্বাচন কমিশনার আনিসুর রহমান আরো বলেন, এক সাথে ৩০০ আসনে ইভিএমে ভোট নেয়ার সক্ষমতা-সামর্থ ও প্রস্তুতি এই মুহুর্তে ইসির নেই। যাও ১২০ হতে ১৩০টি আসনের ভোট করার মত আছে, সেই মেশিন গুলোই যে সঠিক সেটা যাচাই-বাছাই করার জন্য আমরা সকল পক্ষের সাথে কথা বলব। বিভিন্ন দলের কথা শুনব। তারা কি মত দেন। তারা যদি বলেন ইভিএমে সমস্যা, তাহলে বলব মনোনিত একপার্ট (বিশেষজ্ঞ) টিম দিয়ে পরীক্ষা করুন। ত্রুটি ধরিয়ে দেন। আর ক্রুটি না থাকলে সার্টিফিকেট দেন। সেখানে যে ত্রুটি দেখা দেবে তা সমাধান করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে ইভিএমে ভোট নেয়া হবে কিনা।

তিনি বলেন, কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে আমাদের প্রথম টেষ্টকেস। কুমিল্লার ভোটকেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা লাগানো হবে। নির্বাচনের আগের দিন থেকে সেখানে সিসি ক্যামেরা কাজ করবে। কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে মন্তব্য করে বলেন,আগের কমিশনে ভেতরে একরকম কথা হত। আর বাহিরে এসে কোন সদস্য বিপরিতমুখী উল্টা-পাল্টা কথা বলতেন। এই কমিশনে সেটা হবে না। এই কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনারই সব বলবেন।

আগামী সংসদ নির্বাচনে বিএনপির অংশ নেয়ার বিষয়ে কমিশনের কি উদ্যোগ রয়েছে সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান বলেন, কোন রাজনৈতিক দলের নির্বাচনে অংশ নেয়া তাদের একতিয়ার। নির্বাচনে আনা বা না আনা আমাদের বিষয় না। তার পরও প্রত্যেক দলকে আমরা আমন্ত্রন জানাবো। একবার না,একাধিক বার আমন্ত্রন জানাবো। আসবে-কি আসবে না সেটা এই মুহুর্তে বলা যাবে না। এটা বলা সঠিক হবে না।

© Alright Reserved 2021, Hridoye Shariatpur